দেশজুড়ে

নিজেকে নিজেই কোপা লেন ‘মানসিক ভারসাম্যহীন’ ব্যক্তি

প্রিন্ট করুন

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে নিজের হাতে নিজেকে কোপালেন শিশু মিয়া (৪০) নামের এক মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যাক্তি।

 
মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) বিকালে পৌরশহরের বাঁশমহাল এলাকায় এই ঘঠনা ঘটে।  শিশু মিয়া উপজেলার শিবপাশা ইউনিয়নের শিবপাশা নতুনবাড়ী এলাকার মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বিকালে শিশু মিয়া বাঁশ মহাল এলাকায় গিয়ে একটি দোকানে চা পান করেন। এরপর সেখান থেকে বের হয়ে নিজের হাতে নিজের শরীরের বিভিন্ন অংশে কোপাতে থাকেন। এসময় আশে পাশের লোকজন তাকে থামাতে গেলে তাদেরকে দা দিয়ে কোপাতে যান শিশু মিয়া।

স্থানীয়রা বিষয়টি পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ এসে শিশু মিয়াকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে তার প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

 
আজমিরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ডালিম আহমেদ বলেন, খবর পেয়ে আমরা তাকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসি। সেখান থেকে তার পরিচয় সনাক্তের পর পরিবারকে খবর দেয়া হয়।

শিশু মিয়ার মা জানান, তার স্ত্রী প্রবাসে থাকেন।  কয়েকদিন যাবত মানসিক ভারসাম্যহীনতায় ভুগছিলো শিশু মিয়া। কিছুদিন পুর্বে তাকে এক কবিরাজের কাছে চিকিৎসা করায় তার পরিবার। গত তিন চারদিন যাবত তার ভারসাম্যহীনতা বেড়েই চলছিলো।

 
তিনি আরো জানান, তার শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।


Related Articles

Back to top button
Close