দেশজুড়ে

বানিয়াচংয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় দোকান কুপিয়ে লন্ডভন্ড ও মালামাল লুট

প্রিন্ট করুন


হবিগঞ্জের সংবাদ,অনলাইন ডেস্ক। হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলার বড়বাজারে একটি দোকানঘর সন্ত্রাসী কায়দায় কুপিয়ে ভাংচুর করে লন্ডভন্ড করে দিয়েছে মোশাহেদ মিয়ার নেতৃত্বে একদল লোক। মোশাহেদ ১ নং উত্তর পুর্ব ইউনিয়নের দত্তপাড়া গ্রামের নুর হোসেনের পুত্র। এ সময় দোকানের টিন, কাঠ ও অন্যান্য জিনিস লুটপাট করার অভিযোগ করেছেন দোকানের মালিক তাম্বলীটুলা গ্রামের মৃত মঞ্জিল মিয়ার পুত্র মোঃ আব্দুল কাদির। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (২০ এপ্রিল) ফজরের নামাজের পরে।

সিসিটিভি ফুটেজ ও কাদিরের ভাস্যমতে জানা যায়, বড়বাজার সাবরেজিস্ট্রার মসজিদ ও আলামিন স্টোরের পাশে আব্দুল কাদিরের পৈত্রিক ভিটায় ১১ শতক জায়গার মাধ্যে ৮ শতক ভ‚মিতে দোকানঘর নির্মাণ করে ভাড়া দিয়ে বহুবছর যাবৎ ভোগদখল করে আসছেন। সম্প্রতি ওই ভুমির ১ শতক খালি জায়গায় আরো একটি দোকানঘর নির্মাণ করেন তিনি।

বুধবার দিনগত রাত মানুষ যখন ঘুমে আচ্ছন্ন ঠিক তখনই মোশাহেদ মিয়া তার দলবল নিয়ে দেশীয় অস্ত্র রামদা, দা, শাবুল, হাতুড়ী নিয়ে দোকান ঘরটি কুপিয়ে ও অন্যান্যভাবে ভেঙ্গে চুড়মার করে দেয়।

এ ব্যাপারে আব্দুল কাদির জানান, মোশাহেদ ও তার সহযোগীরা আমার পৈত্রিক ভিটে দখল করার পায়তারায় সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা চালিয়ে এবং লুটপাট করে কয়েক লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করেছেন। আমি মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি ) অজয় চন্দ্র দেব জানান, মোশাহেদ মিয়া ইতিপুর্বে অভিযোগ করেছেন তার পৈত্রিক জায়গায় কাদির জোরপূর্বক ঘর নির্মাণ করেছে। পরে ওই ঘরে দরজা লাগানোর সময় পুলিশ গিয়ে কাজ থেকে বিরত থাকতে বলে আসে এবং উভয়পক্ষকে নিয়ে বসার সিদ্ধান্ত হয়। তবে ঘর ভাঙচুড়ের বিষয়ে কোনো অভিযোগ আসেনি, আসলে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


Related Articles

Back to top button
Close