দেশজুড়ে

দীর্ঘ ১৪ বছর পর আজ পৌর বিএনপি’র সম্মেলন

প্রিন্ট করুন


হবিগঞ্জ সংবাদদাতা, দীর্ঘ ১৪ বছর পর আজ বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে হবিগঞ্জ পৌর বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন। দীর্ঘদিন পর সম্মেলনকে ঘিরে নেতা-কর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। দেখা দিয়েছে উৎসব-আমেজ। আড্ডা আর আলোচনায় উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে দলীয় কার্যালয়ে।
এদিকে, সম্মেলনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে হবিগঞ্জ পৌর বিএনপির আহবায়ক কমিটি। শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে সম্মেলন এবং এর আগে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন নেতৃবৃন্দ। এতে ৬৪৯ জন কাউন্সিলর তাদের ভোটের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন।
হবিগঞ্জ পৌর বিএনপি সূত্র জানায়, হবিগঞ্জ পৌরসভা মাঠে আজ বিকেল ৩ টায় পৌর বিএনপির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা রফিকের সভাপতিত্বে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম ডাঃ জাহিদ হোসেন উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। তাছাড়া সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে কেন্দ্রীয় বিএনপির সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডাঃ সাখাওয়াত হাসান জীবন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন মিলন এবং সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক জিকে গউছ উপস্থিত থাকবেন বলে জানিয়েছে পৌর বিএনপি। এর আগে সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত শহরের শায়েস্তানগর দলীয় কার্যালয়ে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।
এ উপলক্ষে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছে। এতে জেলা বিএনপি আহবায়ক কমিটির সদস্য এডভোকেট মঞ্জুর উদ্দিন শাহীন প্রধান কমিশনার ও জেলা মৎস্যজীবি দলের সভাপতি এডভোকেট মুদ্দত আলী, জেলা আইনজীবি ফোরামের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোঃ আবুল ফজল, হবিগঞ্জ সদর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এডভোকেট আফজাল হোসেন ও বাহুবল উপজেলা বিএনপি নেতা এডভোকেট হাবিবুর রহমান সহকারী নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।  
নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, ৫টি পদে পৌর বিএনপি নির্বাচন ঘোষনা করা হলে ২টি পদের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছেন। তারা হলেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি মুজিবুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক মর্তুজ আহমেদ রিপন। বাকি ৩টি পদে কাল ভোট হবে। এতে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন ৬ জন প্রার্থী। তারা হলেন, সভাপতি পদে হবিগঞ্জ পৌর বিএনপির য্গ্মু আহবায়ক তাজুল ইসলাম ফরিদ ও জেলা বিএনপির সদস্য আব্দুল হান্নান ফরিদ, সাধারণ সম্পাদক পদে ১নং ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক আহবায়ক লিটন আহমেদ ও পৌর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এস.এম আউয়াল  এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে ৭নং ওয়ার্ড বিএনপি সাবেক সভাপতি দেওয়ান আব্দুল মোহাইমীন চৌধুরী ফুয়াদ ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোঃ কুতুব উদ্দিন শামীম।
এদিকে, দলীয় নেতৃবৃন্দ বলছেন, ‘দীর্ঘ ১৪ বছর ধরে সম্মেলন না হওয়ায় স্থবির হয়ে পড়েছে দলীয় কার্যক্রম। নেতা-কর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে বিভক্তি। এর আগে ২ বার সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হলেও সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়নি। যে কারণে প্রার্থীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ ও মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়’।
জেলা কৃষকদলের আহবায়ক মাহবুবুর রহমান আউয়াল বলেন, ‘এর আগে দুবার তারিখ নির্ধারণ হলেও সম্মেলন হয়নি। কাল তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের ভোটে নেতা নির্বাচিত হবেন। আশা করছি তাদের মাধ্যমে দলীয় কার্যক্রম গতিশীল হয়ে উঠবে’।
পৌর বিএনপি আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা রফিক বলেন, ‘সম্মেলন ঘিরে নেতা-কর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। শান্তিপুর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্যে দিয়ে সম্মেলন সম্পন্ন হবে’।
প্রধান কমিশনার এডভোকেট মঞ্জুর উদ্দিন শাহীন বলেন, ৫ পদের মধ্যে ২ পদের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছেন। কাল ৩টি পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এতে ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। ছবি যুক্ত ভোটার তালিকা তৈরী করা হয়েছে। এ তালিকায় যাদের নাম থাকবে না তাদের আইডি কার্ড (জাতীয় পরিচয় পত্র) প্রদর্শন করতে হবে’।
উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের ১৬ নভেম্বর আমিনুর রশিদ এমরানকে সভাপতি ও এনামুল হক সেলিমকে সাধারণ সম্পাদক করে তাৎকালীন জেলা বিএনপির আহবায়ক ও সাবেক এমপি সৈয়দ মোঃ ফয়সল হবিগঞ্জ পৌর বিএনপির কমিটি অনুমোদন দেন। পরে ২০১৯ সালের ২৯ আগস্ট বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা রফিককে আহবায়ক করে ৪৫ সদস্য বিশিষ্ট হবিগঞ্জ পৌর বিএনপির কমিটি ঘোষনা করে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটি।


এই বিভাগের সর্বশেষ

Back to top button
Close