দেশজুড়ে

শ্রীমঙ্গলে ছাত্রের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন-হামলাকারীর শাস্তির দাবী

প্রিন্ট করুন

রুবেল আহম্মদ, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি।
মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ১০ শ্রেণীর ছাত্র শওকত বখত ইফতি এর উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে সহপাটি শিক্ষার্থীরা।

গতকাল শনিবার (২০ আগস্ট) দুপুরে কলেজ রোডস্থ শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে দি বাডস্ রেসিডিনয়্যিাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রবৃন্দের ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নির্যাতনের শিকার দি বাডস্ রেসিডিনয়্যিাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজের ১০ শ্রেণীর শিক্ষার্থী শওকত বখত ইফতি মা শিরীন বেগম। মাববন্ধনে শিরীন বেগম জানান, একই স্কুলের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র তাসফির সাথে তার ছেলে ঝগড়া বিবাদ সৃস্টি হলে স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাগন তাদের মদ্যে ঘটনাটি মিটমাট করে দেন। পরে টিফিনের সময় তার ছেলে খাবারের জন্য সরকারী কলেজের গেইটে পৌছা মাত্র সাবেক ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন রাহিতসহ কয়েজন তার ছেলেক প্রাণে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করে এলোপাথীরী মারপিঠ করে জখম করে। স্ব-জোরে থাপ্পর মারার কারণে তার কানের পর্দা পেটে যায়। এ সময় হামলাকারীরা তার প্যান্টের পকেট থেকে ১২শত কাটা নিয়ে যায়। পরে সহপাটি শিক্ষার্থীরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কপপ্লেক্সে নিয়ে গেলে ডাক্তাররা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করলেও পরে তাকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় একই দিন রাতে শিরীন আক্তার দেলোয়ার হোসেন রাহিত (৪২), আব্দুল মোতলিব আকিব (পাপ্পু) (২৬) পাবেল মিয়া (২৬)সহ আরো ২/৩জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে শ্রীমঙ্গল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। জানাযায়, এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই দিন সন্ধায় কলেজ রোড থেকে মামনায় এজাহারভূক্ত ২নং আসামী শ্যামলী আবাসিক এলাকার বানিন্দা আব্দুল বারিকের পুত্র আব্দুল মোতলিব আকিব (পাপ্পু) গ্রেফতার করে পুলিশ। এব্যাপারে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন রাহিত জানান,তার রাজনৈতিক অবস্থান ঘায়েল করার জন্য তার ও ছেলের বিরুদ্ধে এভাবে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে মিথ্যা মামলা ও নির্যাতনের অভিযোগ করা হচ্ছে। বরংচ ইফতি একটি বখাটে ছেলে হিসাবে সর্বত্র প্রমান আছে।তিনিসহ যাদের নামে মামলা হয়েছে কেউই এ ঘটনার সাথে জড়িত না বলে জানান।


Related Articles

Back to top button
Close