দেশজুড়ে

দালালরা সুবিধায় থাকে বরাবরই আর সুবিধা বঞ্চিত হয় ত্যাগীরা

প্রিন্ট করুন

বাবুল মিয়া,

আমরা যারা বরাবরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দলের পক্ষে লিখতে গিয়ে নানা ধরনের হুমকি ধামকি শুনে যাচ্ছি, দল তাদের কি দিয়েছে একটু ভেবে দেখবেন। তবুও আমরা দলের পক্ষে থাকি তার একটাই কারণ আমরা অর্থ আর ক্ষমতার জন্য দল করি না। দল যখন ক্ষমতায় ছিল না তখনও আমরা ছিলাম আজও আছি,তখনও নির্যাতিত হয়েছি সুবিধাভোগ থেকে বঞ্চিত হয়েছি আজও একই পরিস্থিতি। আর যারা দলের দূর্দিনে পাশে ছিল না, আজও যারা দলের পক্ষে অন্যায়ের প্রতিবাদ করে না তারা ঠিকই সরকারি কাজের টেন্ডার ভাগাভাগি, ইট বালুর ব্যবসা,জমি অধিগ্রহণ, ফুটপাত দখল করে আরাম আয়েশে জীবন কাটিয়ে যাচ্ছে। বড় দুঃখ লাগে বড় বড় পোস্টার ব্যানারে যারা মুজিব কোট আর মুজিব আদর্শের সৈনিক লিখে যাচ্ছে তাদের বেশির ভাগই মুজিব কন্যাকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দেয়া ব্যক্তির বিরুদ্ধে টু শব্দ টুকুও করেননি। অনেক জনপ্রতিনিধি রয়েছে নৌকা প্রতীকের জন্য লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করেছে অথচ নৌকার মূল কর্ণধার জননেত্রীর পক্ষে একটা লাইনও লিখতে সাহস পায়নি।

পরিশেষে এটাই বলব দলের নীতিনির্ধারকদের বুজা উচিত কারা সুবিধাবাদী আর কারা সুবিধা বঞ্চিত তাদের খুঁজে বের করুন। নব্য হাইব্রিড আর সর্ব দলীয় দালাল খটাতে।


এই বিভাগের সর্বশেষ

Back to top button
Close