শিক্ষা সাহিত্য

অপবাদ – সাজ্জাদ বিন লাল

প্রিন্ট করুন


নীলাঃ একবার বললাম,
ঐ নিস্তব্ধ আকাশের মত
তুমি কি হবে আমার?
নীলঃ কি করে বলো হবো তোমার,
তুমিতো খোলনি মনের সেই রুদ্ধধার।

নীলাঃ নদী হয়ে বয়ে গেছো নিরবধি,
তোমার প্রেম জোয়ারে সেই স্রোত ধারায়,
তরঙ্গ লোহরিতে ভাসছে মনোকূল আত্মহারায়-
সত্যিই কি বেসেছিলে ভালো…. কভু আমায়?
না সবটাই ফুরালে ভাসার টান কৃপণতায়?

নীলঃ কি করে বাসবো ভালো তোমায়- তুমি তো ভাঙনি লাজ জড়তায়।
নীলাঃ বাতাসের মত কখনো কি ছোঁয়ে ছিলে আমার আবেগ অনুভূতি?

নীলঃ দেখবো সেই স্পর্ধা ছিল কি অনুমিত,
কেমনে স্পর্শ করবো তোমায়-
তুমি তো দাওনি সে সম্মতি আমায়।

নীলাঃ সবটাই ভুল ছিল তোমার,
তুমি বুঝনি কখনো এ মন আমার,
আমি লিখেছি কবিতা তোমার তরে
কলমের কালিতে আবিরের রঙ ভরে।
আমি বুনেছি সুর ওই তারার মেলায়-
তুমি শুননি টান দারুণ অবহেলায়,
গেথেছি মালা ফুল কানুন কুঞ্জে
তুমি দেখনি বলে হল মলিন রঞ্জিত রঞ্জে।
এমনি করে ব্যর্থ প্রেম আমার
যুগে যুগে কবি রচে প্রেমকাব্য লিখে উপন্যাস
নিয়ে তোমার আমার এর সবটাই দায়ী তোমার।

নীলঃ হা হা হা…………..
সব দ্বায় ভার আমায় দিয়ে মুক্ত হলে তুমি
যদি বলি এ প্রেম ব্যর্থ নয়….
এখনো তোমায় নিবিড় ভাবে ভালোবাসি আমি……

নীলাঃ হুম…. না না ওভাবে বলো না আর
তবে ভেঙে যাবে আমার অভিমানের ভার
বেপরোয়া ভালের উচাটানে জেগে বসবে মনে তোমায় ফিরে পাবার স্বাদ,
এর চেয়ে ডের ভালো এসো ঘৃণা তিক্ততায়
মিথ্যে অভিনয়ের ছলনায়-
বুনি দু’জন দু’জনাকে দুষে যাওয়া ফাঁদ।

নীলঃ তবুও দিওনা ব্যর্থ প্রেমের অপবাদ—–
নীলাঃ জোসনা! সেতো দুর থেকে ভালোবাসে সবাই তাই বলে কি কাছে এসে ধরা দেয় চাঁদ???


এই বিভাগের সর্বশেষ

Back to top button
Close